7:45 am - Tuesday January 16, 2018

১৬ জানুয়ারী চরফ্যাশনে নির্মিত উপ- মহাদেশের সর্বোচ্চ ওয়াচ টাওয়ার উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি

ফরহাদ হোসেন, ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার চরফ্যাশনে আইফেল টাওয়ারের আদলে
নির্মিত উপ-মহাদেশের সর্বোচ্চ ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। আগামী ১৬
জানুয়ারী মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ টাওয়ারটি উদ্বোধন করবেন। পরিবেশ ও বন উপ-মন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরো

বলেছেন এটি চরফ্যাশন ও ভোলাবাসীরজন্য নতুন বছরের উপহার। মহামান্য রাষ্ট্রপতির চরফ্যাশন ও ভোলা পরিদর্শনকে ঘিরে গোটা ভোলায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ভোলা-৪ (চরফ্যাশন-মনপুরা) আসনের এইসংসদ সদস্যের নামেই টাওয়ারটির নামকরণকরা হয়েছে ‘জ্যাকব টাওয়ার’। সম্ভাবনাময়পর্যটন এলাকা চরফ্যাশনের খাসমহল জামেমসজিদ ও ফ্যাশন স্কয়ারের পাশে এটাওয়ারটি নির্মিত হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নেচরফ্যাশন পৌরসভা এই ওয়াচ টাওয়ারনির্মাণ
প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। টাওয়ারটির ডিজাইন করেছেন স্থপতিকামরুজ্জামান লিটন।
২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে এর কাজ শুরু করা হয়। ২২০ ফুট উচ্চতার এই ওয়াচ
টাওয়ারটি ৭৫ ফুট মাটির নিচ থেকে ৭০টি পাথর ঢালাই পাইলিং ফাউন্ডেশনের ওপর
সম্পূর্ণ স্টিল স্ট্রাকচারে নির্মিত। ৮ মাত্রারভূমিকম্প সহনীয় এই টাওয়ারের চূড়ায় ওঠার জন্য সিঁড়ির পাশাপাশি রয়েছে ১৬ জন ধারণক্ষমতার অত্যাধুনিকক্যাপসুল লিফট।

টাওয়ারের চারদিকে অ্যালুমিনিয়ামের ওপর ৫ মিলিমিটার ব্যাসের স্বচ্ছ গ্লাস রয়েছে। এক হাজারবর্গফিটের ১৭ তম তলায় রয়েছে বিনোদনের ব্যবস্থা। পর্যটকরা বাইনোকুলারের সাহায্যে ১০০ বর্গকিলোমিটার পর্যন্তদেখতে পারবে। আরও আছে বিশ্রাম, প্রাথমিক চিকিৎসা ও খাবারের ব্যবস্থা। প্রায় ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিতদৃষ্টিনন্দন টাওয়ারটি পর্যটকদের দারুণ ভাবে আকর্ষণ করবে বলে আশা করছেন আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব।

এব্যাপারে উপ-মন্ত্রী বলেন, বিশ্বখ্যাত আইফেল টাওয়ারের আদলে নির্মিত হওয়া এই ওয়াচ
টাওয়ারটি চরফ্যাশনসহ ভোলাকে আলাদা পরিচিতি এনে দেবে। তিনি আরো বলেন, এ
টাওয়ারটি কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা পর্যটন সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে উপজেলার চরকুকরি-
মুকরি, ঢালচরসহ আশপাশের বনাঞ্চলে ইকোপার্ক গড়ে তোলা হয়েছে।
এদিকে ‘জ্যাকব টাওয়ার’ উদ্বোধনের খবরে উচ্ছ্বসিত স্থানীয় বাসিন্দারা। তারা বলছেন,
ওয়াচ টাওয়ার উদ্বোধনের মাধ্যমে একদিকে এ অঞ্চলের অর্থনীতি ও মানুষের জীবনযাত্রা বদলে
যাবে। অন্যদিকে সরকারি খাতে রাজস্ব আয় বাড়বে।
চরফ্যাসন পৌরসভার মেয়র বাদল কৃষ্ণ দেবনাথ স্বাক্ষরিত মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল
হামিদ সফর সূচিতে জানা গেছে, ১৬ জানুয়ারী মঙ্গলবার বেলা ১২ .৩৫ মিনিটে
হেলিকপ্টারযোগে চরফ্যাশন এসে দুপুর ২টা পর্যন্ত মহামান্য রাষ্ট্রপতি দক্ষিণ-পূর্ব
এশিয়ার সর্বাধুনিক ও সুউচ্চ জ্যাকব টাওয়ার, অধ্যক্ষ নজরুর ইসলাম ডিগ্রী কলেজ,
বেগম রহিমা ইসলাম ডিগ্রী কলেজ, নজরুল ইসলাম টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, রসুলপুর-
এওয়াজপুর মৈত্রী সেতু শুভ উদ্বোধন ও চরফ্যাশন সরকারি টি.বি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে
এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণ প্রদান করবেন।
এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন, শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি,
বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি, পরিবেশ ও বন উপ-মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম
জ্যাকব এমপি।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন, কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের এমপি আফজাল
হোসেন , ভোলা-৩ আসনের এমপি নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন , ভোলা-২ আসনের এমপি
আলী আজম মুকুল।
বিকাল সাড়ে তিনটায় চরফ্যাশন থেকে হেলিকপ্টার যোগে পর্যটন দ্বীপ চর কুকরি-মুকরি
গিয়ে বন বিভাগের রেস্ট হাউসে রাত্রিযাপন করবেন এবং রাতে একটি সাংস্কৃতিক
অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।
পরের দিন ১৭ জানুয়ারী সকাল ১০ টায় কুকরি-মুকরিতে পর্যটন কেন্দ্র এবং ইকো
পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।
সকাল ১১ টায় কুকরি-মুকরি থেকে হেলিকপ্টারযোগে ভোলার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন। বেলা
১১ .৩০ মিনিটে ভোলা পৌছে দৌলতখানের বাংলা বাজারে নির্মিত স্বাধীনতা যাদু
ঘরের শুভ উদ্বোধন ও ১২ ঘটিকায় ফাতেমা খানম ডিগ্রী কলেজে সুধী সমাবেশে
যোগদান করবেন। এরপর হেলিকপ্টারযোগে বঙ্গবভনের উদ্দেশ্যে ভোলা ত্যাগ করবেন।


Filed in: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
error: Content is protected !!