7:52 am - Tuesday January 16, 2018

সাধারণের চাইতে বেশি বুদ্ধিমান আপনি…৭ টি বৈজ্ঞানিক লক্ষণে জেনে নিন !

প্রায় সকলেরই নিজেকে নিয়ে একধরণের আফসোস থাকে ‘আরেকটু বুদ্ধি হলে ভালো হতো’। নিজেকে আরেকজনের সাথে আপন মনেই তুলনা করে এই আফসোসের বাক্যটি বের হয় অনেকের।

কিন্তু আপনি বুদ্ধিমানের ব্যাপারটি কীভাবে পরিমাপ করেন? একজন মানুষ আপনার চোখে বুদ্ধিমান কোন হিসেবে ধরা পড়ে তা বলুন তো। অনেকেই আজকালকার যুগের বুদ্ধি খাটিয়ে চলা এবং স্মার্টলি চলাফেরার বিষয়টি উপস্থাপন করবেন। কিন্তু বিজ্ঞান কি আপনার মতো ভাবে? মোটেই নয়। বিজ্ঞানের কাছে বুদ্ধিমানের সংজ্ঞা পুরোপুরি আলাদা। আপনি বুদ্ধিমান কিনা এবং সবচাইতে মূল ব্যাপার হলো আর দশজন সাধারণ মানুষের চাইতে বুদ্ধিমান কিনা তা বিবেচনা বিজ্ঞান বিবেচনা করবে আপনার ৭ টি লক্ষণ দেখে।

১) আপনি যদি ধূমপান না করেন তাহলে আর দশজন ধূমপায়ী মানুষ থেকে আপনি অনেক বেশি বুদ্ধিমান। দ্য ডেইলি মেইলে প্রকাশিত একটি গবেষণার ফলাফলে দেখা যায় ১৮-২১ বছর বয়েসি ধূমপায়ীদের আইকিউ ৯৪, যেখানে একই বয়েসি অধূমপায়ীদের আইকিউ লেভেল ১০১। যারা দিনে পুরো ১ প্যাকেট সিগারেট খান তাদের গর আইকিউ ৯০।

২) আপনি যদি মিউজিক শেখার কাজটি করেন তাহলে আপনি অন্যান্য অনেক মানুষের তুলনায় বুদ্ধিমান। ২০১১ সালের একটি গবেষণায় দেখা যায় ৪-৬ বছর বয়েসি শিশুদের কথা বলার বুদ্ধিমত্তার বিষয়টি অনেক বেড়ে যায় মাত্র ১ মাসের মিউজিক কোর্সে। ২০১৩ সালের একটি গবেষণায় প্রকাশ পায় যাদের আইকিউ বেশি তারা বেশীরভাগ সময়েই মিউজিকের প্রতি আগ্রহী থাকেন।

৩) আপনি যদি পরিবারের বড় সন্তান হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ভাইবোনদের মধ্যে আপনার বুদ্ধিই সবচাইতে বেশি। দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস প্রকাশ করে, ‘জুন, ২০০৭ এর একটি গবেষণায় দেখা যায় পরিবারের বড় সন্তানদের আইকিউ প্রায় ৩ পয়েন্ট বেশি থাকে সবথেকে কাছের ছোটো ভাইবোনের চাইতে। এটি বায়োলজিক্যাল কোনো ব্যাপার নয়। এটি পুরোপুরি সন্তান ও অভিভাবকের সম্পর্কের একটি সাইকোলজিক্যাল ব্যাপার।

৪) আপনার স্বাস্থ্য যদি চিকণ হয় তাহলে একটি ভারী স্বাস্থ্যের মানুষের চাইতে আপনি অনেক বেশি বুদ্ধিমান। ২০০৬ সালে ফ্রান্সের একটি গবেষণায় প্রায় ২,২০০ মানুষের উপর দীর্ঘ ৫ বছর গবেষণা করে দেখা যায় স্বাস্থ্য যতো ভারী হবে ততোই বিচার বিবেচনার বুদ্ধি কমতে থাকে।

৫) আপনি কি বেড়াল পোষেন? তাহলে জেনে রাখুন অন্যান্য মানুষের তুলনায় আপনার বুদ্ধি বেশি। ২০১৪ সালের একটি গবেষণায় দেখা যায় যারা কুকুর পোষেন তাদের তুলনায় যারা বেড়াল পোষেন তাদের বুদ্ধি বেশি থাকে। ব্যাপারটি আর কিছুই নয় শুধুমাত্র ঘরকুনো এবং আত্মকেন্দ্রিক হওয়ার বিষয়। যারা বেড়াল পোষেন তারা ঘরেই বেশি থাকতে পছন্দ করেন এবং তারা অনেক সৃজনশীল মানসিকতার হয়ে থাকেন।

৬) আপনি বামহাতি হলে আপনার বুদ্ধিমত্তা ডানহাতি মানুষের তুলনায় বেশি। গবেষণায় দেখা যায় বেশীরভাগ বামহাতি মানুষেরা একইসাথে দুহাতে দুটি কাজ করতে পারেন এবং সম্পূর্ণ দুদিকে মনোযোগ দিতে পারেন একসাথেই, যা একজন সাধারণ ডানহাতি মানুষ পারেন না।

৭) সকলেই বলেব লম্বা মানুষের বুদ্ধি কম থাকে। কিন্তু বিজ্ঞান তা বলে না। প্রিন্সটন স্টাডির গবেষণায় দেখা যায়, ‘লম্বা বাচ্চারা অন্যান্যদের তুলনায় বুদ্ধি বিবেচনায় এগিয়ে থাকে অনেক বেশি, তারা কগনিটিভ টেস্টে অন্যান্য শিশুদের থেকে বেশ এগিয়েই থাকে’।

 


Filed in: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
error: Content is protected !!