11:31 am - Tuesday February 20, 2018

লাল বালতিতে ছোট ছেলে আর সবুজটিতে বড় ছেলের লাশ!

ক্ষেতের কাজ শেষে বাড়ি ফিরে স্ত্রী ও সন্তানের খোঁজ করি। পরে দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করি। সেখানে বাথরুমের লাল বালতির ভেতরে ছোট সন্তান রুমানের লাশ ও বড় সবুজ বালতিতে বড় ছেলে মারুয়ানের লাশ দেখতে পাই’।

এভাবেই দুই সন্তানের লাশ উদ্ধারের কথা জানালেন সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের কোনাউড়া-নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা বাবা কবির আলী।

মঙ্গলবার রাতে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, বাথরুমে দুই সন্তানের লাশের পাশে বালতির ওপর স্ত্রী রনি বেগমকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

তিনি বলেন, লাল বালতির ওপর থেকে রনি বেগমকে সরিয়ে দেখেন ভেতরে ছোট সন্তান রুমানের লাশ ও বড় সবুজ রঙের বালতির ভেতরে ঢাকনা খুলে তিনি বড় সন্তান মারুয়ানের লাশ পান।

এ ব্যাপারে থানার এসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার বিকালে সিলেটের বিশ্বনাথে দুই শিশুসন্তানকে হত্যার পর মা ডেটলপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়।

নিহত দুই শিশু তিন বছর বয়সী নাহিদুল ইসলাম মারুয়ান ও ১৮ মাস বয়সী ওয়াহিদুল ইসলাম রুমান।

এদিকে এ ঘটনায় দুটি বালতি, একটি ডাকনা ও একটি কলস জব্ধ করেছে পুলিশ। লাশ দুটি ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার দুপুরে বাড়িতে নেয়া হয়েছে। আর রনি বেগম সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, শিশু দুটিকে হত্যার পর মা রনি বেগম আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। তবে কী কারণে শিশু দুটিকে হত্যা করে মা আত্মহত্যার চেষ্টা করেন এ বিষয়টি এখন পর্যন্ত স্পষ্ট নয়।

এসআই আরও বলেন, শিশুদের বাবা কবির আলীর কাছ থেকে সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। মা রনি বেগমের জ্ঞান ফেরার পর ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে।


Filed in: বাংলাদেশ