4:12 pm - Monday February 19, 2018

চলন্ত বাসে বসেই হস্তমৈথুন, ভিডিও করলেন তরুনী!অতঃপর…

চলন্ত বাসে বসেই হস্তমৈথুন করছেন এক যুবক! পাশের আসনে বসা এক ছাত্রী এ ঘটনার প্রতিবাদ করলেও তিনি নির্বিকার। নির্বিকার সহযাত্রীরাও। এমন ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটেছে দিল্লিতে। এ ঘটনার ভিডিও তুলে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্রী পুলিশের কাছে অভিযোগ করলেও অভিযুক্তকে এখনও আটক করা হয়নি।

ও ছাত্রীর মোবাইলে তোলা ভিডিও সে নিজের ফেসবুক পেজে পোস্ট করেছেন। পাশাপাশি তিনি ভিডিওটি ট্যাগ করেছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল, দিল্লির পুলিশ কমিশনার এবং দিল্লি পুলিশকে।

সেখানে দেখা যাচ্ছে, বাসে মোটামুটি ভিড়। কয়েক জন দাঁড়িয়ে আছে। বাকিরা বসে আছে। সেই বাসে বসেই হস্তমৈথুন করছেন ওই যুবক। কোলে রাখা ব্যাগ দিয়ে আড়াল করেই কাজ সারছেন তিনি। যাতে, পাশে বসা ওই ছাত্রী ছাড়া অন্য সহযাত্রীদের নজরে বিষয়টি না আসে।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে এই ঘটনা ঘটে। ৮ তারিখ ওই ভিডিওটি পোস্ট করেন ছাত্রী। কিন্তু, সোমবার গোটা ঘটনা নিয়ে শোরগোল শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ওই ছাত্রী জানিয়েছেন, ওই দিন সকালে বাসে করে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছিলেন। বসন্ত বিহারের বেশ কিছুটা আগে তিনি খেয়াল করেন, পাশে বসে থাকা এক যুবক সহযাত্রী কেমন একটা চাহনিতে তাঁর দিকে তাকিয়ে রয়েছেন।

এর পরেই তিনি বুঝতে পারেন, ওই ব্যক্তি হস্তমৈথুন করছেন। বিষয়টি বুঝতে পেরে ছাত্রীটি চিৎকার করে তাঁকে বারণ করেন। কাজ না হওয়ায়, কন্ডাকটরসহ অন্যদের নজরে আনেন বিষয়টি। কিন্তু, হস্তমৈথুন যেমন তাতে থামেনি, তেমনই কেউ এগিয়েও আসেননি প্রতিবাদ করতে। বরং সকলেই চুপ করেছিলেন বলে অভিযোগ।

ওই ঘটনা মোবাইলে গোটা বিষয়টির ভিডিও করেন ওই ছাত্রী। তাতেও ভাবলেশহীন ছিলেন ওই যুবক। নির্বিকার ভাবেই তিনি হস্তমৈথুন করতে থাকেন। এর কিছুক্ষণ পরে বসন্ত বিহার এলে ছাত্রীটি এক প্রকার বাধ্য হয়ে নেমে যান।

প্রথমে তিনি বসন্ত বিহার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ভিডিওটি তিনি পুলিশ কর্মীদের দেখান। সেখানে হস্তমৈথুনকারীকে স্পষ্ট ভাবেই দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু, সেই ঘটনার পর ৬ দিন কেটে গেলেও এখনও পর্যন্ত কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।


Filed in: বিভিন্ন সংবাদ