5:19 am - Friday January 19, 2018

আপু ওর সেটা অনেক ছোট আমি ক্লান্ত আমি আর পারছি না…

আসলে আমি নিজেই ভুল করেছি অন্য কারও দোষ দিয়ে কি লাভ বলুন,আমার দুর্ভাগা কপালের জন্য আমি নিজেই দায়ী। আপনারা কি আমাকে একটি সঠিক পরামর্শ দিতে পারবেন?

 

আমার এই মুহুর্তে কি করনীয় সেটা আমাকেই নির্ধারণ করতে হবে, কারণ আমার পরিবার আমার বিষয়ে আর কিছুই বলতে চাই না, আর কেনইবা বলবে আমিতো কারও কথা কখনো শুনিনি!তখন যদি সবার কথা শুনতাম তাহলে আর এমনটা হতো না?

 

তাহলে আপু শুনুন আমার কথা,কলেজে পড়াকালীন এক ছেলেকে ভালোবেসেছিলাম,ও আমাকে অনেক ভালবাসতো. কিন্তু আমার পরিবার থেকে সেটা কিছুতেই মেনে নিচ্ছিল না কারণ সবাই তপু কে খারাপ বলতো তবে আমি কখনো তপুর ভিতরে খারাপ কিছুই দেখিনি,

 

অনেক লম্বা কাহিনীর পরে পালিয়ে আমরা বিয়ে করি, তপুর বাড়িতে সেটা খুব ভালোভাবেই নিয়েছিলো কিন্তু আমার পরিবারে এটা মেনে নেয়নি.

 

একসময় আমার বাসায় এটা মেনে নেই,ও বেকার তাই শাশুড়ি সবসময় আমাকে নিয়ে অযথা বকাবাজি করে একসময় আমি তপুকে নিয়ে আমার বাড়িতে চলে আসলাম. শুরু হলো আমার উপর অনাচার,

 

সব সময় আমার উপর চাপ প্রয়োগ করে টাকার জন্য.কয়েকবার আমার আব্বু তপুকে ব্যাবসা করার জন্য টাকা দিয়েছে কিন্তু সেই টাকা ও রাখতে পারেনি,এখন আমি বেশ ভালোই বুঝতে পারছি সবাই তপুর পরিবারের ষড়যন্ত্র আমাদের পরিবার থেকে টাকা হাতিয়ে নেবার জন্য.

 

গত মাসে আমার আব্বু দুইটি আইফোন কিনেছিলেন একটা আমার ভাই সিফাতের জন্য আর একটা তপুর জন্য,কিন্তু আপু ওর সেটা অনেক ছোট ডিসপ্লে এই অজুহাতে আমাকে ব্যাপক মারধর করে, আমি বললাম ডিভোর্স দিবো আর তখনই কান্নাকাটি শুরু করে.

 

এভাবে অনেক দেখেছি কিন্তু আমি আর পারছি না, সবসময় কোন না কোন বাহানা নিয়েই থাকে কিছু আদায় করার জন্য.আসলে আমাকে ফাঁদে ফেলে আমার আব্বুর হাত থেকে কিছু নেওয়ায় ওর মুল উদ্দেশ্য.

 

আপু ভালোবেসে বিয়ে করেছি তাই ছাড়তে কস্ট হচ্ছে কয়েকবার সিদ্ধান্ত নিতে যেয়ে ফিরে এসেছি এখন আপনার দ্বারস্ত হলাম আপনিই বলুন আমার এই পরিস্থিতিতে কি করা উচিৎ?

 


Filed in: জীবনের গল্প
error: Content is protected !!